শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ ৩রা আশ্বিন ১৪২৮
 
বিএনপির ৪৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী আজ
প্রকাশ: ০৯:৩০ am ০১-০৯-২০২১ হালনাগাদ: ০৫:৫২ pm ০১-০৯-২০২১
 
 
 


বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির ৪৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী আজ ১ সেপ্টম্বর। ১৯৭৮ সালের এদিনে সাবেক সেনাপ্রধান জিয়াউর রহমান ক্ষমতা বলয়ের মধ্য থেকে বিএনপি প্রতিষ্ঠা করেন।

বিএনপি’র। জাতীয় গণতান্ত্রিক দলকে (জাগদল) বিএনপির সঙ্গে একীভূত করা হয়। রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান এই দলের সমন্বয়ক ছিলেন এবং এই দলের প্রথম চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করেন। অধ্যাপক এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী দলটির প্রথম মহাসচিব ছিলেন। জিয়াউর রহমানের এই দলে বাম, ডান, মধ্যপন্থি- সব ঘরানার লোককে ভেড়ানো হয়।

১৯৭৮ সালের ১ সেপ্টেম্বর বিকেল ৫টায় রমনা রেস্তোরাঁয় আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তৎকালীন রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের আনুষ্ঠানিক ঘোষণাপত্র পাঠের মাধ্যমে বিএনপির যাত্রা শুরু। জনাকীর্ণ সংবাদ সম্মেলনে তিনি ঘোষণাপত্র পাঠ ছাড়াও প্রায় দুই ঘণ্টা সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন। সংবাদ সম্মেলনে প্রথমে ১৮ জন সদস্যের নাম এবং ১৯ সেপ্টেম্বর ওই ১৮ জনসহ ৭৬ সদস্যের আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণা করেন জিয়াউর রহমান। বিএনপির প্রধান বৈশিষ্ট্য ছিল দলটির প্রায় ৪৫ শতাংশ সদস্য ছিলেন তরুণ।

বিএনপি প্রতিষ্ঠার মাত্র তিন বছরের মাথায় ১৯৮১ সালের ৩০ মে সামরিক অভ্যুত্থানে নিহত হন জিয়াউর রহমান। এ ঘটনার মধ্য দিয়ে বিএনপির রাজনীতিতে জিয়া পর্বের সমাপ্তি ঘটে। কিছু দিনের মধ্যেই দলের হাল ধরেন খালেদা জিয়া। ১৯৮৪ সালের ১০ মে বিএনপির চেয়ারপারসন নির্বাচিত হন তিনি।

প্রতিষ্ঠার পর ১৯৭৯, ১৯৯১, ২০০১ সালে অনুষ্ঠিত জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিজয়ী হয় বিএনপি। ১৯৯৬ সালে ১৫ অনুষ্ঠিত একতরফা নির্বাচনেও বিজয়ী হয় দলটি। তবে ২০০৭ সালের ১১ জানুয়ারির পর থেকেই ক্ষমতার বাইরে রয়েছে এই দল।

এই মুহূর্তে দলটির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া রাজনীতি থেকে অনেকটাই দূরে রয়েছেন। দুর্নীতির মামলায় দণ্ডিত খালেদা জিয়া নানা শারীরিক জটিলতা নিয়ে অবস্থান করছেন গুলশানের বাসা ‘ফিরোজা’য়। আর ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানও দুর্নীতির দায়ে দণ্ডিত হয়ে এখন রয়েছেন নির্বাসনে।

প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এক বাণীতে বলেছেন, ‘আজ থেকে ৪৩ বছর আগে দেশের এক চরম ক্রান্তিকালে মহান স্বাধীনতার ঘোষক, বহুদলীয় গণতন্ত্রের প্রবক্তা, বিশ্বনন্দিত নেতা, শহিদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান এ দেশের মানুষকে একদলীয় দুঃশাসনের করাল গ্রাস থেকে রক্ষার জন্য বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি প্রতিষ্ঠা করেন। প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই বিএনপি দেশ, দেশের মানুষের উন্নয়ন এবং বিশ্বের সব রাষ্ট্রের সঙ্গে সমমর্যাদার ভিত্তিতে সৌহার্দ্য ও বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক স্থাপনে নিরলস কাজ করে যাচ্ছে।’

তিনি বলেন, ‘বর্তমান দুঃসময়ে জনগণকে সংগঠিত করার কোনো বিকল্প নেই। দেশ আজ দুঃশাসন কবলিত। মানুষ ভয়াবহ নিরাপত্তাহীনতার মধ্যে দিনাতিপাত করছে। গুম-খুনের আতঙ্ক মানুষের নিত্যসঙ্গী। আইন, বিচার, প্রশাসনকে সরকার কব্জার মধ্যে রাখার চেষ্টায় মরিয়া। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে বেআইনি কাজ করতে বাধ্য করা হচ্ছে। ফলে সমাজে দেখা দিয়েছে বিপজ্জনক বিশৃঙ্খলা। খুন-খারাবি, নারী-শিশু নির্যাতন, অপহরণ, গুপ্তহত্যা ইত্যাদি অনাচারের মাত্রা বৃদ্ধি পেয়েছে। কারণ, সরকার যেখানে জনগণের প্রতিপক্ষ সেখানে মানুষের জানমালের কোনো নিরাপত্তা থাকতে পারে না। সুতরাং জনগণের নিরাপত্তা বিধানের জন্যই গণতন্ত্রকে ফিরিয়ে আনতে হবে- এটাই বিএনপির ৪৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অঙ্গীকার।’

বিএনপির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর কর্মসূচি

১ সেপ্টেম্বর সকাল ৬টায় বিএনপি’র নয়াপল্টন কেন্দ্রীয় কার্যালয়সহ সারাাদেশে কার্যালয়ে দলীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। সকাল ১১টায় বিএনপি’র প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের সমাধিতে দলের জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্যদের ফাতেহা পাঠ ও ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন, দুপুর ১২টা থেকে ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ বিএনপি এবং কেন্দ্রীয় অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের পক্ষ থেকে পর্যায়ক্রমে জিয়ার সমাধিতে ফাতেহা পাঠ, ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন, প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা, হেল্প ক্যাম্প ও করোনা রোগীদের সহায়তা প্রদান, প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে পোস্টার প্রকাশ ও ক্রোড়পত্র প্রকাশের কর্মসূচি চলছে দলটির। দিবসটি উপলক্ষে সারাদেশে একইভাবে আলোচনা সভাসহ অন্যান্য কর্মসূচি পালন করবে স্থানীয় বিএনপি।

 
 

আরও খবর

 
 
 
 
 
 
 
 
©newsofbd24.com