মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর ২০২১ ৪ঠা কার্তিক ১৪২৮
 
তামিমা আমার স্ত্রী, হাসিমুখেই ঘরে নেব: রাকিব
প্রকাশ: ০৪:২২ pm ৩০-০৯-২০২১ হালনাগাদ: ০৪:২৯ pm ৩০-০৯-২০২১
 
 
 


রাকিব হাসানকে ডিভোর্স না দিয়েই তামিমা নাসির হোসেনকে বিয়ে করেন। এই অভিযোগে আদালতে মামলা দায়ের করেন রাকিব। মামলায় ক্রিকেটার নাসির হোসেন, তামিমা সুলতানা তাম্মি ও তাম্মির মা সুমি আক্তারের বিরুদ্ধে সমন জারি করেছেন আদালত। তবে এই পরিস্থিতিতে তামিমাকে হাসিমুখে ঘরে তুলে নিতে চান আইনত স্বামী রাকিব হোসেন। 

বৃহস্পতিবার দুপুরে আদালত থেকে গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেন রাকিব হোসেন।   গণমাধ্যমের সঙ্গে আলাপচারিতায় রাকিব বলেন, 'সে এখনো আমার স্ত্রী, এটা আইনই বলে দিয়েছে। তাকে হাসিমুখেই ঘরে নেব, বরিশাল নিয়ে যাব। আমার মেয়েকে দেখাশোনা করবে।'

আগামী ৩১ অক্টোবর নাসির-তামিমা-সুমি আদালতে হাজির না হলে তাদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হবে। এর আগে ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ জসীমের আদালতে সৌদিয়া এয়ারলাইন্সের বিমানবালা তামিমা সুলতানা তাম্মী ও তামিমার মা সুমি আক্তারকে দোষী উল্লেখ করে প্রতিবেদন জমা দেয় পিবিআই। তালাক বৈধ না হওয়ায় সৌদিয়া এয়ারলাইন্সের কেবিন ক্রু তামিমা সুলতানা তাম্মী এখনও ব্যবসায়ী রাকিব হাসানের স্ত্রী। রাকিব এখন তাকিয়ে আছেন আদালতের পরবর্তী নির্দেশের দিকে।

গত ১৪ ফেব্রুয়ারি ক্রিকেটার নাসির হোসেন ও তামিমা সুলতানার বিয়ে হয়। নাসিরের স্ত্রী পেশায় কেবিন ক্রু। কাজ করেন বিদেশি একটি এয়ারলাইনসে। এরপর রাকিব হাসান নামের একজন তামিমাকে নিজের স্ত্রী দাবি করেন। তাদের ১১ বছরের সংসারে একটা ৮ বছরের মেয়েও আছে। তামিমা রাকিবকে তালাক না দিয়েই নাসিরকে বিয়ে করেন। এমন অভিযোগে ২৪ ফেব্রুয়ারি নাসির-তামিমার বিরুদ্ধে মামলা করেন রাকিব। দেশের ধর্মীয় বিধিবিধান ও আইন অনুযায়ী এক স্বামীকে তালাক না দিয়ে অন্য কাউকে বিয়ে করা অবৈধ ও শাস্তিযোগ্য অপরাধ।

 
 

আরও খবর

 
 
 
 
 
 
 
 
©newsofbd24.com